Топ-100
Back

ⓘ ইয়াঙ্গুন কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয়




ইয়াঙ্গুন কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয়
                                     

ⓘ ইয়াঙ্গুন কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয়

ইয়াঙ্গুন কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয় ইয়াঙ্গুনের গয়গনে অবস্থিত মায়ানমারের সেরা প্রকৌশল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

১৯২৪ সালে রেঙ্গুন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ প্রকৌশল বিভাগ হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হওয়া এবং এর পুরাতন নাম রেঙ্গুন ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি আরআইটি হিসাবেই অধিক পরিচিত ওয়াইটিইউ দেশটির সবচেয়ে প্রাচীন এবং বৃহত্তম প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় ও মায়ানমারে প্রকৌশল শিক্ষা দানকারী সর্বশ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান। বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রকৌশল বিভাগে প্রায় ৮,০০০ শিক্ষার্থীকে স্নাতক, স্নাতকোত্তর এবং ডক্টরেট ডিগ্রি প্রদান করে।

এছাড়াও ওয়াইটিইউ আসিয়ান বিশ্ববিদ্যালয় নেটওয়ার্ক, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া প্রকৌশল শিক্ষা উন্নয়ন নেটওয়ার্ক AUN/SEED-Net এবং বৃহত্তর মেকং উপ-অঞ্চল শিক্ষা ও গবেষণা নেটওয়ার্ক GMSARN এর সদস্য।

                                     

1. ইতিহাস

১৯২৪ সালে ব্রিটিশ উপনিবেশিক যুগে রেঙ্গুন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে প্রকৌশল বিভাগ হিসাবে এই বিশ্ববিদ্যালয়টির উদ্ভব ঘটে। প্রথমাবস্থায় এই বিভাগটির অবস্থান ছিলো ইয়াঙ্গুনের পুরাতন শহরতলীতে অবস্থিত রেঙ্গুন জেনারেল হাসপাতালের বর্ধির চত্ত্বরে এবং মাত্র দুই জন প্রভাষক ও ১৭ জন শিক্ষার্থী নিয়ে এর যাত্রা শুরু হয়। ১৯২৭ সালে এটি একটি আলাদা প্রতিষ্ঠান হিসাবে মর্যাদা লাভ করে, যখন একে বর্মা তেল কোম্পানি Burmah Oil Company-এর নামানুসারে বিওসি প্রকৌশল ও খনিবিদ্যা কলেজ BOC College of Engineering and Mining হিসাবে নামকরন করা হয় এবং চার মাইল উত্তরে এটিকে স্থানান্তরিত করা হয়। ১৯৩৮ সালে সংযুক্ত বিষয় হিসাবে যন্ত্র ও বৈদ্যুতিক প্রকৌশল বিষয়টির অন্তর্ভূক্তির পূর্ব পর্যন্ত পুরকৌশল বিভাগই ছিল এখান হতে একমাত্র শিক্ষা দানকারী বিষয়।

১৯৪৬ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধেপর কলেজটি রেঙ্গুন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল অনুষদ হিসেবে স্বীকৃতি পায়। ১৯৪৮ সালে বার্মার স্বাধীনতা লাভেপর এই কলেজটিতে ১৯৫৪ সালে খনিবিদ্যা, রাসায়নিক প্রকৌশল, ধাতুবিদ্যা এবং স্থাপত্যবিদ্যা বিভাগ এবং ১৯৫৫ সালে বস্ত্র প্রকৌশল বিভাগ খোলা হয়।

১৯৬১ সালে কলেজটি রেঙ্গুন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বার্মা ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি BIT নামধারণ করে এবং সোভিয়েত ইউনিয়ন কর্তৃক নির্মিত গাইগোনের বর্তমান ভবন এলাকায় স্থানান্তরিত হয়। ১৯৬৪ সালে, বিআইটিকে রেঙ্গুন ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির RIT হিসাবে নামকরণ করা হয় এবং বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা হলো যে, এটিকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে একটি স্বাধীন বিশ্ববিদ্যালয় হিসাবে স্বীকৃতি দেয়া হয়। রেঙ্গুনন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃৃক প্রদত্ত বিজ্ঞানে স্নাতক প্রকৌশল এবং বিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর প্রকৌশল ডিগ্রির পরিবর্তে আরআইটি প্রকৌশলে স্নাতক এবং প্রকৌশলে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রদান শুরু করে তখন থেকে। বিশ্ববিদ্যালয়টিতে বিগত বছরগুলিতে বর্তমানে ১১টি বিষয়ে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রদান করছে। কেবল ১৯৯৭ সাল হতে পিএইচডি ডিগ্রি প্রদাণ শুরু করা হয়েছে।

১৯৯০ সালে পুনরায় এর নামকরণ করা হয় ইয়াঙ্গুন ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির YIT এবং এটিকে বিজ্ঞান ও প্রযুুক্তি মন্ত্রণালয়ের অধীনে দেয়া হয়। ১৯৯৭ এটি বর্তমান নাম ইয়াঙ্গুন কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয় YTU হিসাবে নথিভূক্ত হয়।

                                     

2. বহিঃসংযোগ

  • ইয়াঙ্গুন কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয় ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখে - অফিসিয়াল সাইট।
  • সিংগাপুর ওয়াইআইটি এ্যালমনাই
  • Myanmar Engineering Society
  • ইউএসএ ওয়াইআইটি এ্যালমনাই
  • আরআইটি এ্যালমনাই