Топ-100
Back

ⓘ আবদুস সোবহান রাহাত আলী উচ্চ বিদ্যালয়




আবদুস সোবহান রাহাত আলী উচ্চ বিদ্যালয়
                                     

ⓘ আবদুস সোবহান রাহাত আলী উচ্চ বিদ্যালয়

মুসলমান ছেলেদের শিক্ষার প্রসারে এই বিদ্যালয়টি ১৯১৪ সালে চট্টগ্রাম-এর পটিয়া সদরের শূন্য কিলোমিটারে শিক্ষানুরাগী মাওলানা আবদুস সোবহান কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রথমে এটি একটি ধর্মীয় মক্তব হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়। দুষ্কৃতকারীরা মক্তব পুঁড়িয়ে দিলে মাওলানা আবদুস সোবহান মক্তবের পাশে অবস্থিত পটিয়া থানায় যান এবং দারোগা রাহাত আলীর সাথে এ ব্যাপারে কথা বলেন। মুসলিম ছেলেদের পড়াশোনার ব্যাপারে তার উৎকন্টার কথা জানান। এ কথা শুনে দারোগা রাহাত আলী মাওলানা আবদুস সোবহানকে তৎকালীন মুসলমানদের উন্নতির কথা বিবেচনা করে মক্তবের পরিবর্তে আধুনিক ইংরেজী বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার গুরুত্ব বুঝান; মাওলানা সাহেব ইংরেজী বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার জন্য আর্থিক অক্ষমতার ব্যাপারে জানালে রাহাত আলী দারোগা তাৎক্ষণিক নগদ ১ হাজার টাকা রূপী প্রদান করেন। পরে এটিকে উচ্চ ইংরেজী বিদ্যালয় হিসেবে উন্নীত করা হয়। ১৯১৭ সালে মাওলানা সাহেবের অনুরোধে তৎকালীন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে রাহাত আলী দারোগার নাম অর্ন্তভুক্ত করে। এরপর থেকে অদ্যবধি বিদ্যালয়টি ‘আবদুস সোবহান রাহাত আলী উচ্চ বিদ্যালয়’ হিসেবে পরিচিত হয়ে আসছে।

                                     

1. স্কুল ভবন

৬টি ভবনের ৩০টি কক্ষে বিদ্যালয়ের শ্রেণী কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। বিজ্ঞান শিক্ষার জন্য রয়েছে সমৃদ্ধ পৃথক ২টি ল্যাব কক্ষ, যেখানে রসায়ন ও জীব বিজ্ঞান হাতে কলমে শিক্ষা দেয়া হয়। আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি শিক্ষার জন্য রয়েছে একটি সমৃদ্ধ আইসিটি ল্যাব।

                                     

2. অন্যান্য অবকাঠামোগত সুযোগ সুবিধাসমূহ

বিজ্ঞান শিক্ষার জন্য রয়েছে সমৃদ্ধ পৃথক ২টি ল্যাব কক্ষ, যেখানে রসায়ন ও জীব বিজ্ঞান হাতে কলমে শিক্ষা দেয়া হয়। আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি শিক্ষার জন্য রয়েছে পৃথক কম্পিউটার/আইসিটি ল্যাব। পাঠ্য বইয়ের বাইরে জ্ঞান অর্জনের জন্য রয়েছে একটি সমৃদ্ধ পাঠাগার কক্ষ। রয়েছে পৃথক অফিস কক্ষ। প্রধান শিক্ষকের জন্য রয়েছে সুবিশাল অফিস কক্ষ ও বিশ্রামাগার। শিক্ষকদের জন্য রয়েছে পৃথক কমন রুম। রয়েছে একটি নামায ঘর। বিদ্যালয়ের মাঝে পৃথক একটি অডিটোরিয়াম রয়েছে। যেখানে বছরব্যাপী অনুষ্ঠিত হয় সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রোগ্রাম। তবে ইচ্ছে করলে বাইরের লোকজনও শর্ত সাপেক্ষে নির্দিষ্ট ফি’র বিনিময়ে অডিটোরিয়াম ব্যবহার করতে পারেন। একটি পৃথক বিল্ডিং-এ রয়েছে ছাত্রদের জন্য রয়েছে একাধিক শৌচালয়।